মূল Beauty (বাংলা বিউটি টিপস) ত্বকের যত্ন রিভিউ: ত্বক ভেতর থেকে পরিষ্কার করবে পিল-অফ মাস্ক

রিভিউ: ত্বক ভেতর থেকে পরিষ্কার করবে পিল-অফ মাস্ক

সুপ্রিয় পাঠকেরা, প্রিয় লাইফে আপনাদের স্বাগতম। আপনাদের জীবনকে আরও একটু সহজ করতে, নানান রকম পণ্য ও সেবার রিভিউ ও খোঁজ-খবর তুলে ধরতে এখন থেকে আমাদের নিয়মিত আয়োজন থাকবে “প্রিয় রিভিউ”। আপনার কষ্টের টাকায় যেন সেরা পণ্যটি  বেছে নিতে পারেন, সেটাই আমাদের কাম্য। রেস্তরাঁ থেকে কসমেটিক্স, পোশাক থেকে জুতো, আসবাব, রান্নাঘর সামগ্রী, সবমিলিয়ে নিত্যদিনের জীবন যাপনের জন্য প্রয়োজন সকল প্রকারের পণ্য ও সেবার ভালো-মন্দ সকল দিকই তুলে ধরার চেষ্টা থাকবে আমাদের এই আয়োজনে।

বাইরে তো সকলেরই বের হওয়া হয়। নিজের ক্লাস থাকে নয়তো অফিস থাকে। অথবা বাচ্চার স্কুল, কিংবা ঘরের কেনাকাটা, বাজার। আর বাইরে বের হওয়া মানে হলো মুখে একগাদা ধুলাময়লা মেখে এরপর বাসাতে ফেরা। আমাদের দেশের আবহাওয়ায় এমনিতেও আর্দ্র খুব বেশী, তার উপরে রাস্তা ভর্তি ধুলাবালি। যে কারণে, নিজের শরীরের ঘাম এবং বাইরের ধুলাবালি একসাথে হয়ে ত্বকে খুব গভীর হয়ে বসে যায়। আর ত্বকের উপরে ময়লা এইভাবে বসে যাওয়ার ফলেই তৈরি হয় ব্রণ, হোয়াইট হেডস, ব্ল্যাক হেডস সহ ত্বকের আরো নানান ধরণের সমস্যা।

বাসাতে ফিরেই চটজলদি পছন্দনীয় সাবান কিংবা ফেসওয়াশ দিয়ে মুখ ধুয়েই আপনি যদি মনে করেন যে, আপনার ত্বক একেবারেই পরিষ্কার হয়ে গিয়েছে এবং ত্বকের আর কোন সমস্যা দেখা দেবে না, তবে আপনি ভুল!

সারাদিনের ঘামের সাথে বাইরের জেদি ধুলাবালি মিশে আপনার ত্বকের অনেক গভীরে চলে যায়। যা শুধুমাত্র সাবান কিংবা ফেসওয়াশ দিয়ে ধোয়া যথেষ্ট নয়। কারণ সাবান কিংবা ফেসওয়াস শুধুমাত্র ত্বকের উপরিভাগের ময়লা দূর করতে সাহায্য করে বলে আপনাকে দেখতে ফ্রেশ মনে হয়। কিন্তু, সাবান কিংবা ফেসওয়াস ত্বকের গভীর থেকে ময়লা বের করতে পারে না। যার ফলে, আপনার ত্বকের গভীরে জমা হওয়া ময়লা রয়ে যায় এবং যার ফলাফল স্বরূপ ত্বকের নানান রকম সমস্যা দেখা দিতে শুরু করে।

ত্বকের গভীর থেকে কোন পণ্যটি ময়লা বের করতে সাহায্য করবে?

সেক্ষেত্রে ত্বকের গভীরের ময়লা পরিষ্কার করার জন্যে ব্ল্যাক-মাস্ক অথবা পিল-অফ মাস্ক ব্যবহার করতে পারেন। যা ইতিমধ্যেই অনেক জনপ্রিয়তা পেয়েছে। এই পিল-অফ মাস্ক ত্বকের গভীরের ময়লাগুলোকেও পরিষ্কার করতে পারে বলে, সঠিক নিয়মে এবং নিয়মিত এই মাস্ক ব্যবহার করলে ত্বকের মরা চামড়া, হোয়াইট হেডস, ব্ল্যাক হেডস দূর হবে এবং ব্রণের সমস্যা দেখা দেওয়াও কমে যাবে অনেকখানি।

সকল ধরণের ত্বকের সাথে কি এই পণ্যটি মানানসই?

প্রায় সব ধরণের ত্বকের সাথেই পিল-অফ মাস্ক খুব ভালোভাবে মানিয়ে যায় বলে এই পণ্যটি ব্যবহারে ত্বকের আলাদা বা বাড়তি কোন সমস্যা দেখা দেয় না। ইতিমধ্যেই এই পিল-অফ মাস্ক ক্রেতাদের কাছে জনপ্রিয়তা পেয়েছে, কিন্তু এই পণ্যটির বিরুদ্ধে অনেকেরই একটা কমন অভিযোগ আছে। ‘মুখের বিভিন্ন অংশের হোয়াইট কিংবা ব্ল্যাক হেডস একবারে উঠে আসে না কেনো?’

এর পেছনে বেশ কিছু কারণ রয়েছে। যার প্রধান কারণটি হলো, আমরা সঠিকভাবে এই পণ্যটি ব্যবহার করতে জানিনা এবং আমরা ভেবে নেই একবার ব্যবহারেই সকল ব্ল্যাকহেডস দূর হয়ে যাবে।

পিল-অফ মাস্ক একদম সঠিকভাবে ব্যবহারের নির্দেশনা বলে দেওয়া হচ্ছে। ঠিকঠাক এই নিয়মে ব্যবহার করতে পারলে অনেকখানি উপকার পাবেন আপনি।

পিল-অফ মাস্ক ব্যবহারের নির্দেশনা:

১/ প্রথমে আপনার পছন্দসই সাবান কিংবা ফেসওয়াশ দিয়ে মুখ খুব ভালোভাবে ধুয়ে নিন। পিল-অফ মাস্ক ব্যবহারের পূর্বে অবশ্যই নিশ্চিত হতে হবে মুখ যেন পরিষ্কার থাকে এবং তৈলাক্ত না থাকে।

২/ এরপরে মুখ ভালোভাবে মুছে নিন। একটা ছড়ানো পাত্রে ভাপ ওঠা গরম পানি নিয়ে তার উপরে মুখ দিয়ে ভাপটা মুখে ভালোমতো লাগতে দিন। এতে করে আপনার মুখের পোর অথবা লোমকূপগুলো অনেকটা শিথিল হবে।

৩/ এখন মাথার চুল ভালোভাবে বেঁধে নিন যেন পিল-অফ মাস্ক মুখে লাগানোর সময়ে চুল মুখের কাছে এসে না পড়ে। হাত ভালোভাবে ধুয়ে নিন মাস্ক লাগানোর জন্যে।

৪/ চোখ, ভ্রূ এবং ঠোঁট বাদ পুরো মুখমণ্ডলে পুরু স্তর করে মাস্কের প্রলেপ লাগান।খেয়াল রাখবেন প্রলেপ যত ঘন হবে, তত বেশী ভালো কাজ করবে।

৫/ এরপর আধাঘন্টা সময় দিন। এই সময়ের মধ্যে মাস্ক শুকিয়ে গেলেও ওঠানোর চেষ্টা করবেন না এবং অবশ্যই মাস্ক ভালোমতো শুকানোর জন্য সময় দিবেন।

৬/ আধা ঘন্টা পার হয়ে গেলে খুব সাবধানে এবং আস্তে আস্তে মুখ থেকে মাস্ক উঠিয়ে নিন। এরপর ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ভালোভাবে মুখ ধুয়ে নিন। জ্বালাপড়া করলে মুখে অল্প বরফ ঘষে নিতে পারেন।

এইভাবে সপ্তাহে দুই-তিনবার ব্যবহার করার পর আপনি নিজেই নিজের ত্বকের মাঝে পার্থক্য ধরতে পারবেন। ব্ল্যাকহেডস ত্বকের অনেক গভীরে হয় বলে একবারেই সেটি উঠে আসবে না। তবে কিছুটা সময় নিলে ধীরে ধীরে সেটিও উঠে যাবে পুরোপুরি।

কোথায় পাবেন এবং দাম কেমন?

এই ব্ল্যাক পিল-অফ মাস্ক আপনি কিনতে পাবেন যেকোন সুপার-শপ অথবা ভালো মার্কেটে। অনলাইনেও প্রচুর পাওয়া যাচ্ছে। তবে অনলাইন থেকে কেনার আগে সতর্ক হয়ে নিন পেইজটি বিশ্বস্ত কিনা! আর দারুণ এই জিনিসটা দামটাও একদম হাতের নাগালেই। মার্কেট এবং দোকান ভেদে এই পণ্যের দাম পড়বে ৩০০-৩৫০ টাকা মাত্র।

এই ছিলো আজকের রিভিউ। এই পণ্যটি ব্যবহারের অভিজ্ঞতা যদি আপনারও থেকে থাকে, তাহলে নিচে কমেন্ট আকারে আমাদের লিখে জানান। সেরা কমেন্টগুলো আমরা গ্রাহকের কমেন্ট হিসাবে যোগ করে দেব আমাদের এই ফিচারের সাথে!

রিভিউ: ত্বক ভেতর থেকে পরিষ্কার করবে পিল-অফ মাস্ক

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here